প্রথম ম্যাচ টাইগারদের সম্ভাব্য একাদশ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামছে টাইগাররা। প্রতিপক্ষ চমক দেখানোর মতো দল স্কটল্যান্ড।বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় ওমানের আল আমিরাতে ম্যাচটি শুরু হবে।

গ্রুপপর্বের ‘বি’ গ্রুপে বাংলাদেশের অন্য দুই প্রতিপক্ষ ওমান ও পাপুয়া নিউগিনি। চারটি দল থেকে দুটি দল সরাসরি বিশ্বকাপের মূলপর্বে সুযোগ পাওয়া আট দলের সঙ্গে যুক্ত হবে।

দেশ ছাড়ার পর থেকে পিঠের ব্যথায় কোনো ম্যাচ খেলতে পারেননি মাহমুদউল্লাহ। দুটি অফিসিয়াল প্রস্তুতি ম্যাচেই বিশ্রাম ছিলেন মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন। আইপিএলে খেলার জন্য এখনও দলের সঙ্গে ছিলেন না সাকিব আল হাসান। তাই পূর্ণ শক্তি নিয়ে কোনো প্রস্তুতি ম্যাচ না খেলেই বিশ্বকাপ অভিযানে নামছে বাংলাদেশ।

মাহমুদউল্লাহ অবশ্য গতকাল জানিয়ে দিয়েছেন বলেন, ‘ইনজুরি থেকে অনেকটাই রিকভার করেছি। আগামী ম্যাচে (স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে) আমি খেলব।’ এদিকে, প্রস্তুতি ম্যাচে শ্রীলঙ্কা এবং আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ভরাডুবির পর সাংবাদিকরা স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে মাহমুদুউল্লাহর কাছে জানতে চান। তিনি বলেন, ‘স্কটল্যান্ডকে ছোট করে দেখছি না। আশা করি নিজেদের সেরাটা দিয়ে খেলব।’

কন্ডিশন নিয়ে টাইগার অধিনায়ক বলেন, ‘কন্ডিশন প্রস্তুতি ম্যাচের মতোই। স্পোর্টিং উইকেট হবে হয়তো। তবে আমরা যে কোনো কন্ডিশনের জন্য প্রস্তুত থাকব।’ প্রতিপক্ষকে ছোট করে দেখার কিছু নেই। প্রতিটা দলকে সমানভাবে সম্মান করে দেখি। স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে দলে পেসার বেশি থাকবে। এছাড়া সৌম্য, লিটন, নাঈম এই তিনজনের দুইজন ওপেনিং করবে। আরও যোগ করেন, অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে যেমন কম্বিনেশন ছিল তেমনই থাকবে।

অতীতে স্কটিশদের সঙ্গে টাইগারদের মাত্র একবার দেখা হয়েছে। ২০১২ সালের জুলাই মাসে নেদারল্যান্ডসে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ-স্কটল্যান্ড ম্যাচে একক আধিপত্য বিস্তার করে স্কটিশরা। সেই ম্যাচে আগে ব্যাট করে রিচি বিরিংটনের সেঞ্চুরিতে ৭ উইকেটে ১৬২ রান করে স্কটল্যান্ড। লক্ষ্য তাড়ায় ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে ১৮ ওভারে ১২৬ রানেই অলআউট হয় মুশফিকুর রহিমের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ দল। ৩৪ রানের সহজ জয় পায় স্কটিশরা।

অতীতের সেই হতাশা ভুলে সাম্প্রতিক ধারাবাহিক পারফরম্যান্সে ফুরফুরে মেজাজে থাকা টাইগাররা জয় দিয়েই বিশ্বকাপের শুরুটা রাঙাতে চায়।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ: মোহাম্মদ নাঈম, লিটন দাস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), আফিফ হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, নাসুম আহমেদ, মোস্তাফিজুর রহমান ও শরিফুল ইসলাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published.