বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে ফিল্ডিংয়ে যে দল

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে পাপুয়া নিউগিনির মুখোমুখি স্বাগতিক ওমান। এরই মধ্যে টস হয়ে গেছে। টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ওমানের অধিনায়ক জিসান মাকসুদ। ম্যাচটি শুরু হচ্ছে বিকেল ৪টায়।

প্রথমবারের মতো সহযোগী দেশ হিসেবে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে ওমান ক্রিকেট দল। দীর্ঘ পাঁচ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপটি সংযুক্ত আরব আমিরাতের পাশাপাশি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ওমানেও। আর নিজেদের মাটিতে একটু নির্ভারই থাকবে দলটি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় অর্জন আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে জয়। ২০১৬ সালে ভারতে মাটিতে অনুষ্ঠিত হওয়া বিশ্বকাপে আয়ারল্যান্ডের দেওয়া ১৫৫ রানের লক্ষ্য তাড়া করে ফেলে ওমান ক্রিকেট দল। অবশ্য পরবর্তীতে সবগুলো ম্যাচ হেরে টুর্নামেন্টের প্রথম পর্ব থেকেই বাদ পড়ে তারা।

২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ওমানের অংশগ্রহণ খানিকটা অবাক করার মতোই। বিশ্বকাপের আগের বছরেও আইসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট লিগের ডিভিশন ৫ এর ক্রিকেট খেলছিল ওমান। এবার অবশ্য বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব খেলতে হয়েছে তাদের।

২০১৯ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে গ্রপের দ্বিতীয় স্থানে ছিল তারা। সেবার প্লে-অফে নামিবিয়ার কাছে ৫৪ রানে হারলেও বাচা-মরার লড়াইয়ে হংকংকে ১২ রানে হারিয়ে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলার যোগ্যতা অর্জন করে ওমান। ২০১৫ সালে টি-টোয়েন্টির স্বীকৃতি পেয়ে এখন পর্যন্ত ৩৬টি ম্যাচ খেলেছে তারা। যার মধ্যে ১৯টিতে হেরেছে ওমান। বড় জয় বলতে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে।

বাংলাদেশ ছাড়াও ওমানের অন্য প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ড ও পাপুয়া নিউগিনি। এই তিনটি দলের বিপক্ষে লড়াই করতে হলে ব্যাট হাতে দায়িত্ব নিতে হবে জতিন্দর সিংকে। ২০১৯ বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে দলের হয়ে সর্বোচ্চ (২৬৭) রান স্কোরার ছিলেন তিনি। তাছাড়াও ব্যাট হাতে দ্রুত ইনিংস খেলাতেও পারদর্শী তিনি। জতিন্দরের পাশাপাশি বল হাতে দায়িত্ব নিতে হবে বিলাল খানকে। ২০১৯ বাছাইপর্বে সর্বোচ্চ ১৮টি উইকেট নিয়েছিলেন তিনি।

স্বাগতিক ওমান বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলবে ১৯ অক্টোবর এবং ২১ অক্টোবর মাঠে নামবে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে। গ্রুপ পর্বে নিজেদের সবগুলো ম্যাচই হবে ওমান ক্রিকেট একাডেমি মাঠে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *