রাখতে চাই না পিএসজি, থেকে যেতে চাই নেইমার

নতুন করে সব শুরু করছে পিএসজি। সেখানে নেইমার থাকবেন কি না, তা অনিশ্চিত। অন্তত পিএসজি সভাপতির কথায় এমন কিছু ভেবে নিতে পারেন ব্রাজিলিয়ান তারকার সমর্থকেরাচ্যাম্পিয়নস

লিগ শেষ ষোলো থেকে ছিটকে পড়ার পর পিএসজিতে পরিবর্তনের আভাস পাওয়া গিয়েছিল। সে আভাস সত্যি করেই ক্লাবটির ক্রীড়া পরিচালকের পদ ছেড়ে গেছেন লিওনার্দো।

এসেছেন নতুন পরিচালক লুইস ক্যাম্পোস। চলে যাবেন কোচ মরিসিও পচেত্তিনোও। লিল কোচ ক্রিস্তোফার গালতিয়েরের জায়গা নেওয়া মোটামুটি নিশ্চিত। ফরাসি সংবাদমাধ্যমের কথা অনুযায়ী, এ বিষয়ে এখন আনুষ্ঠানিক ঘোষণাই শুধু বাকি। আর এই নতুন শুরুর পুরোধা হিসেবে কিলিয়ান এমবাপ্পেকে ‘চোখের মণি’ বানিয়ে পথ দেখতে চায় পিএসজি।

নতুন চুক্তিতে এমবাপ্পেকে বানানো হয়েছে ফুটবল ইতিহাসে সবচেয়ে দামি খেলোয়াড়। তখন অনেকেই ভেবেছেন, এমবাপ্পের প্রতি পিএসজি সব মনোযোগ দিলে ক্লাবটিতে নেইমার থাকবেন তো? এ ছাড়া লিওনেল মেসিও তো আছেন!মেসির বয়স ৩৪ বছর। ক্যারিয়ারের এই পড়ন্ত বেলায় মেসি নিজেও জানেন, আর কোনো ক্লাবেই তিনি পরিকল্পনার মধ্যমণি হয়তো হতে পারবেন না।

এখন প্রশ্ন হলো, পিএসজির এই নতুন শুরুর পরিকল্পনায় নেইমার থাকবেন কি না। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘মার্কা’কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ বিষয়ে পরিষ্কার করে কিছু বলেননি পিএসজি সভাপতি নাসের আল খেলাইফি।

তবে এতটুকু বুঝিয়ে দিয়েছেন, আগে নেইমারকে যেভাবে আগলে রাখত পিএসজি, সেটি বোধ হয় আর হচ্ছে না, ‘সংবাদমাধ্যমে এসব নিয়ে কথা বলা ঠিক হবে না। অনেকে আসবে, অনেকে চলে যাবে। এসব ব্যক্তিগত দর–কষাকষির বিষয়।’

বার্সেলোনা থেকে ২০১৭ সালে দলবদলের ফি-তে বিশ্বরেকর্ড গড়ে পিএসজিতে যোগ দেন নেইমার। গত মার্চে সংবাদমাধ্যম জানিয়েছিল, মৌসুম শেষেই নেইমারকে বেচে দিতে পারে পিএসজি।

তাঁর ওপর নাকি চটেছে প্যারিসের ক্লাবটি। গার্ডিয়ান, নিউইয়র্ক টাইমস ও বিবিসিতে লেখা খ্যাতিমান ফ্রিল্যান্স সংবাদকর্মী রোমেইন মলিনার বরাত দিয়ে মার্কা জানিয়েছিল, পিএসজি সভাপতি নাসের আল খেলাইফি নেইমারের ওপর বেশ বিরক্ত।

ব্রাজিল তারকা তাঁর পারফরম্যান্স দিয়ে নিজের আকাশচুম্বী দামের যথার্থতা প্রমাণ করতে পারছেন না। ধারাবাহিক চোট তো আছেই, মাঠের বাইরেও নেইমারের কর্মকাণ্ডে বিরক্ত পিএসজি। নেইমার আসার পর এ নিয়ে পঞ্চম মৌসুম চ্যাম্পিয়নস লিগ অধরাই থেকে গেল পিএসজির। তবে গত মার্চেই ‘ওহ মাই গোল’ ওয়েবসাইটকে নেইমার বলেছেন, ‘সত্যিটা হলো আমি থেকে যেতে চাই।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.