হৃদয়বিদারকঃ হাত কেটে হাসপাতালে ব্রাজিলিয়ান তারকা

ক্লাব ফুটবলের বিরতি। আন্তর্জাতিক ম্যাচও গেছে বিশ্রামে। এ অবসর সময়ে ফুটবলাররা পরিবার নিয়ে সময় কাটাচ্ছেন বিলাসবহুল হোটেল ও দ্বীপে। আবার কেউ পরিবার নিয়ে নেচে গেয়ে সামাজিক মাধ্যমে জানান দিচ্ছেন সরব উপস্থিতির।

অথচ এমন সময়ে কিনা দুঃসংবাদ দিলে ব্রাজিলের মধ্য মাঠের খেলোয়াড় লুকাস পাকুয়েতা। ঘুড়ি ওড়াতে গিয়ে হাত কেটে হাসপাতালের শরণাপন্ন তিনি, করাতে হবে অস্ত্রোপচার।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) ঘুড়ি ওড়াতে গিয়ে এমন বিপত্তি বাধিয়েছেন পাকুয়েতা। অবস্থা তেমন গুরুতর নয়। তবে বাঁ হাতের বৃদ্ধা আঙুলের কিছু অংশ কাটা গেছে বলে জানা যায়।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পাকুয়েতা নিজের অবস্থা সম্পর্কে জানিয়ে বলেন, ‘সব ঠিকঠাকই আছে। তবে ভবিষ্যতে আঙুল নড়াচড়ায় যাতে কোনো সমস্যা না হয়, সেটির জন্য আগামীকাল ছোট্ট একটা অস্ত্রোপচার করাব।’

এসময় পাকুয়েতা ঘুড়ি ওড়ানোর সময় তার ভক্তসমর্থকদের সতর্ক থাকতে বললেন। শুধু ঘুড়ি নয়, তার মতে শিশুতোষ যে কোনো খেলায় বিপদ আসতে পারে অজান্তেই। তিনি বলেন,‘এটা মনে রাখবেন, শিশুদের খেলাও বিপদ-আপদ ডেকে আনতে পারে। আমি আজ একটা ঘুড়ি ওড়াচ্ছিলাম, সেখান থেকেই আঙুল কেটে গেছে।’

পাকুয়েতার এই চোট অবশ্য সমস্যায় ফেলবেনা তার ফরাসি ক্লাব লিঁও অথবা জাতীয় দলকে। কারণ লিগ ওয়ানের পরবর্তী মৌসুম শুরু হচ্ছে আগামী আগস্টে। আর ব্রাজিলের পরবর্তী ম্যাচ সেপ্টেম্বরে। ফলে চোঁট সারাতে বেশ ভালো সময়ই পাচ্ছেন এই মিডফিল্ডার।

এদিকে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, এই প্লে মেকারকে দলে ভেড়াতে লিঁওকে বড় প্রস্তাব দিয়ে রেখেছে সৌদি মালিকানাধীন ইংলিশ ক্লাব নিউক্যাসল। এছাড়া লিভারপুলের পছন্দের তালিকায়ও আছেন তিনি। গ্রীষ্মের দল বদল শেষে হয়তো লিগ ওয়ানে নেইমারের প্রতিপক্ষ হিসেবে তাকে আর নাও দেখা যেতে পারে। তখন আবার এডারসন, অ্যালিসন বেকার অথবা কৌতিনিওর প্রতিপক্ষ হিসেবে দেখা যাবে তাকে।

২০১৮ সালে সেলেসাওদের হয়ে অভিষেক হয় পাকুয়েতার। হলুদ-নীল জার্সিতে এখন পর্যন্ত ৩৩ ম্যাচ খেলেছেন এই মিডফিল্ডার। করেছেন ৭টি গোল। অন্যদিকে ২০২০ সাল থেকে লিঁওর হয়ে ৬৫ ম্যাচ খেলে করেছেন ১৮ গোল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.