ইউরোপ ছেড়ে সৌদি আরবে যেতে বাধ্য হন রোনালদো

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়ার আগে ইউরোপেই থাকার চেষ্টা করেছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। উয়েফা ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নস লিগেই খেলতে চেয়েছিলেন তিনি। এজন্য বায়ার্ন মিউনিখ ও চেলসির সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন সিআরসেভেন।

সেই লক্ষ্যে সাবেক এজেন্ট জর্জ মেন্দেসকে আলটিমেটাম দিয়েছিলেন রোনালদো। তবে তা সত্ত্বেও কোনো ক্লাবের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হতে পারেননি তিনি। অগত্যা সৌদি আরবের শীর্ষ ক্লাব আল-নাসরে নাম লেখান ৩৭ বছর বয়সী ফুটবলার।

ফুটবল বিষয়ক জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম গোল ডটকমের এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। এতে বলা হয়, গত নভেম্বরে ম্যানইউর সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করেন রোনালদো। ওল্ড ট্রাফোর্ড নিয়ে নেতিবাচক মন্তব্য করায় এই পথে হাঁটতে বাধ্য হন তিনি।

রোনালদোর বর্ণিল ক্যারিয়ারে অসামান্য অবদান আছে তথাকথিত সুপার এজেন্ট মেন্দেসের। ইউরোপের কোনো ক্লাবে ভিড়িয়ে দেয়ার জন্য তাকে আলটিমেটাম দেন পর্তুগিজ সুপারস্টার। কিন্তু তা পারেননি তিনি। এতে উভয়ের সম্পর্ক ভেঙে যায়।

ক্রীড়াভিত্তিক প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম এল মুন্দো সূত্রে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। এতে বলা হয়, ২০১৮ সালে মেন্দেসের পরামর্শেই রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে জুভেন্টাসে যান রোনালদো। সেসময় সর্বকালের অন্যতম সেরা খেলোয়াড়কে বলা হয়েছিল, এতে ইউরোপে তার ক্যারিয়ার দীর্ঘ হবে। কিন্তু সেটা আর হয়ে ওঠেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *