শেষ ষোলোতে প্রতিপক্ষ হিসেবে যাকে পেল মেসির আর্জেন্টিনা

সব সমীকরণ উড়িয়ে সি গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউট নিশ্চিত করেছে আর্জেন্টিনা। ডু অর ডাই ম্যাচে পোল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়েছে আলবিসেলেস্তেরা। বিশ্বকাপের শুরু থেকেই আর্জেন্টিনাকে হট ফেভারিট ধরেছিল সবাই। প্রথম ম্যাচে সৌদি আরবের সঙ্গে হেরে সেই তকমায় ভাটা পড়ে। কিন্তু সময়ের সঙ্গে ঠিকই জ্বলে উঠেছে দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। তবে মেক্সিকো ও পোল্যান্ড দুই দলকেই ২-০ গোলের ব্যবধানে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাপিয়ন হয়েই দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠলো মেসিরা। যেখানে তারা প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়েছে ডি গ্রুপের রানার্সআপ অস্ট্রেলিয়াকে। পোল্যান্ডের বিপক্ষে

নাকানি চুবানি খেয়ে লজ্জার হার হেরেও শেষ ষোলোতে পোল্যান্ড, মেক্সিকো-সৌদির বিদায়

গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে আর্জেন্টিনার কাছে পরাজিত হওয়ার পরও শেষ ষোলো নিশ্চিত হয়েছে রবার্ট লেভানদোভস্কির পোল্যান্ডের। গ্রুপ সি এর অপর ম্যাচে সৌদি আরবের বিপক্ষে মেক্সিকো জয় পাওয়ায় পয়েন্ট সমান হলেও গোল গড়ে নকআউট নিশ্চিত হয় পোল্যান্ডের। বিশ্বকাপের শেষ ষোলোয় যেতে হলে জয় ছাড়া কোনও উপায় ছিল না মেক্সিকোর। অন্য দিকে সৌদি আরবকেও জিততে হত। ডু অর ডাই ম্যাচে শেষ পর্যন্ত জয় তুলে নিয়েছে মেক্সিকো। ২-১ গোলে সৌদিকে হারায় তারা। কিন্তু শেষ ষোলোয় যাওয়া হল না

অনেক জল্পনা কল্পনার পর মেসির পেনাল্টি মিসের দিনে সব সমীকরণ উড়িয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউটে আর্জেন্টিনা

৩৬ বছরের শিরোপা খরা কাটাতে কাতারে পা রাখে আর্জেন্টিনা। বিশ্বকাপের আগে টানা ৩৬ ম্যাচ অপরাজিত ছিল আলবিসেলেস্তেরা। কিন্তু নিজেদের প্রথম ম্যাচেই সৌদি আরবের কাছে হেরে বসে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। এতে করে শঙ্কায় পড়ে যায় তাদের শেষ ষোলো। কিন্তু সব শঙ্কা দূর করে টানা দুই ম্যাচে জয় নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে শেষ ষোলো নিশ্চিত করেছে আলবিসেলেস্তেরা। পোল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে এদিন শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলতে থাকে লিওনেল স্কালোনির শিষ্যরা। ম্যাচের প্রথমার্ধে আরামেই কাটিয়ে দেন আর্জেন্টিনা গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজ।

গোটা ফুটবল বিশ্বকে তাক লাগিয়ে বলে কয়ে মেসির পেনাল্টি ঠেকালেন পোলিশ গোলকিপার!

লিওনেল মেসি পেনাল্টি শট নিয়েছেন, আর সেটা ব্যর্থ হয়েছে- এমন ঘটনা কমই আছে। আজ আর্জেন্টিনার বাঁচা-মরার লড়াইয়ে এমন দৃশ্যই দেখা গেল। পোল্যান্ড গোলকিপার ভয়চেক সেজনি ম্যাচের আগের দিনই মেসির পেনাল্টি ঠেকানোর ঘোষণা দিয়েছিলেন। আজ মাঠের খেলায় সেটা তিনি করে দেখালেন! এর মাধ্যমে ম্যাচের প্রথমার্ধ শেষ হলো গোলশূন্যভাবে। কাতারের ‘পোর্টেবল’ স্টেডিয়াম ৯৭৪-এ ম্যাচের শুরু থেকেই ছন্দে ছিল আর্জেন্টিনা। তাদের দারুণ ফুটবলে পোল্যান্ড বেশ চাপে পড়ে যায়। আক্রমণের চেয়ে তারা মন দেয় ডিফেন্সে। একের পর এক আক্রমণ

যাকে হারানোর ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পারছে না আর্জেন্টিনা

ইনজুরির কারণে কাতারে এসেও আর্জেন্টিনার দুই গুরুত্বপূর্ণ সদস্য দল থেকে ছিটকে গেছেন। একজন হলেন ইন্টার মিলানে খেলা জোয়াকিম কোরেইরা। অন্যজন ফিওরেন্টিনার নিকো গঞ্জালেস। পোল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচের আগে আর্জেন্টিনার কোচ লিওনেল স্কালোনি বলেছেন, তারা দলের গুরুত্ব সদস্য ছিলেন। সৌদি আরবের বিপক্ষে হেরে আসর শুরু করে আর্জেন্টিনা। মেক্সিকোর বিপক্ষে ২-০ গোলে জিতলেও সুবাস ছড়াতে পারেনি আকাশি-সাদা জার্সিধারীরা। যদিও মেসি ও এনজের গোল ছিল দারুণ। পোল্যান্ডের বিপক্ষে আলবিসেলেস্তেরা নামছে বাঁচা-মরার লড়াইয়ে। যেখানে জিতলেই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়া নিশ্চিত। ড্র

দুই ওপেনারের দুর্দান্ত জোড়া সেঞ্চুরি, দেখুন বাংলাদেশ ম্যাচের সর্বশেষ ফলাফল

প্রথম ইনিংসে ১১২ রানে অলআউট হয়েছিল বাংলাদেশ ‘এ’ দল। জবাবে প্রথম দিনেই ১০ উইকেট হাতে নিয়ে ৮ রানের লিড নিয়েছিল ভারত ‘এ’ দল। দ্বিতীয় দিনেও বোলিংয়ে এলোমেলো খালেদ আহমেদ-রেজাউর রহমান রাজারা। বিনা উইকেটে ১১২ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করেছিল ভারত। সেখান থেকে দ্রুত গতিতে রান তুলেছেন দুই ওপেনার। প্রথম সেশনেই সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন দুইজনই। ১৫৯ বলে তিন অঙ্কের কোটা স্পর্শ করেন ইয়াশভি জয়সাওয়াল। আরেক ওপেনার অভিমন্যু ঈশ্বরন সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন ১৮৪ বলে। দ্বিতীয় দিনের প্রথম

দুই ওপেনারের দুর্দান্ত জোড়া সেঞ্চুরি, দেখুন বাংলাদেশ ম্যাচের সর্বশেষ ফলাফল

প্রথম ইনিংসে ১১২ রানে অলআউট হয়েছিল বাংলাদেশ ‘এ’ দল। জবাবে প্রথম দিনেই ১০ উইকেট হাতে নিয়ে ৮ রানের লিড নিয়েছিল ভারত ‘এ’ দল। দ্বিতীয় দিনেও বোলিংয়ে এলোমেলো খালেদ আহমেদ-রেজাউর রহমান রাজারা। বিনা উইকেটে ১১২ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করেছিল ভারত। সেখান থেকে দ্রুত গতিতে রান তুলেছেন দুই ওপেনার। প্রথম সেশনেই সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন দুইজনই। ১৫৯ বলে তিন অঙ্কের কোটা স্পর্শ করেন ইয়াশভি জয়সাওয়াল। আরেক ওপেনার অভিমন্যু ঈশ্বরন সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন ১৮৪ বলে। দ্বিতীয় দিনের প্রথম

এইমাত্র পাওয়াঃ পোল্যান্ড বধ করতে যে একাদশ নামাল আর্জেন্টিনা

কাতার বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে পোল্যান্ডের মুখোমুখি হচ্ছে আর্জেন্টিনা। দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের জন্য এই ম্যাচ বাঁচামরার। জিতলেই তারা উঠবে শেষ ষোলোতে, ড্র করলে যেতে হবে সমীকরণে। তবে হারলেই বাদ। মেক্সিকোর বিপক্ষে শুরুর একাদশে ছিলেন না আলভারেজ ও এনজো ফার্নান্দেজ। দ্বিতীয়ার্ধে বদলি হিসেবে তারা নামতেই বদলে গিয়েছিল খেলার গতিপথ। তাই বাঁচা-মরার ম্যাচে তাদের শুরুর একাদশেই রেখেছেন স্কালোনি। তাদের জায়গা দিতে একাদশ থেকে ছিটকে গেছেন রদ্রিগেজ ও লাউতারো মার্টিনেজ। রক্ষণভাগেও এক পরিবর্তন এনেছেন স্কালোনি। আগের ম্যাচে

বিশ্বকাপ জিতবে আর্জেন্টিনা, মেসির মায়ের বিশ্বাস

ফুটবল বিশ্বের অন্যতম নক্ষত্রের ক্যারিয়ারে ৯৯৮ ম্যাচে ৭৮৮ গোল। সাতটি ব্যালন ডি’অর। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলকে হারিয়ে কোপা আমেরিকা জয়। সঙ্গে রয়েছে অসংখ্য মাইলস্টোন ও ট্রফি। গত দুই দশকের বেশি সময় ধরে বিশ্ব ফুটবলকে নিজের পায়ে নাচিয়ে চলেছেন লিওনেল মেসি। তবে জীবনে সব পেলেও, তার কাছ থেকে এখন ‘অধরা’ বিশ্বকাপ। এর আগে চারবার ব্যর্থ হয়ে ফিরেছেন। এমন প্রেক্ষাপটে এই কাতার বিশ্বকাপই মেসির কাছে শেষ সুযোগ। বিশ্বকাপ না জিততে পারার জন্য তাকে অনেক কটাক্ষ হজম করতে হয়েছে। কেন

মেসিকে নিয়ে এক ভক্তের আবেগঘন পোস্ট যা প্রতিটি মেসি ভক্তের হৃদয় ছুয়ে যাবে, মুহুর্তেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল

যদি বেচে থাকি…. আজ থেকে ৫০ বছর পরে যখন ছেলেপেলেরা নীল সাদা জার্সিতে রাস্তায় দৌড়াবে ..আমি তখন লাঠি ভড় দিয়ে কোনোরকম হেটে গিয়ে জানালার পর্দা সরিয়ে দেখতে থাকবো … অতঃপর চোখে চশমাটা দিয়ে কাপাকাপা হাতে রিমোট চেপে টিভি অন করতেই শুনবো ” লিওনেল মেসি” ! দেখবো গ্যালারির কোনো এক কোণায় মানুষটা বসে আছে !! চোখ দিয়ে হয়তো কয়েক ফোটা জল গরিয়ে পরবে , চশমা সরিয়ে চোখ মুছতে মুছতে ভাববো ….জীবনে কত রাত যে নির্ঘুম কাটিয়েছি