যে সব নারীর জমজ সন্তান হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে!

যমজ শি’শুদের নিয়ে আমাদের মধ্যে সব সময় এক ধ’রনের কৌতূহল কাজ করে। মজার ব্যাপার হচ্ছে স’ম্প্রতি যমজ শি’শুর জ’ন্মও বাড়ছে। স’ম্প্রতি প্র’কাশিত এক পরিসংখ্যান বলছে, যমজ সন্তান জ’ন্মের হার আগের চেয়ে অনেকটাই বেড়ে গেছে। ১৯৮০ থেকে ২০০৯ পর্যন্ত এই বৃ’দ্ধির হার ৭৬ শতাংশ। ১৯৮০ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, সদ্যভূমিষ্ঠ প্রতি ৫৩ শি’শুর মধ্যে একজন যমজ হত। ২০০৯ সালের হিসেবে তা বেড়ে দাঁড়ায় প্রতি ৩০ জনে একজন।স’ম্প্রতি যমজ সন্তানের মায়েদের উপর গবেষণা চালিয়েছে ‘জার্নাল অব রিপ্রোডাক্টিভ মেডিসিন’।

জেনে নিনঃ ‘গুচ্ছ ‘বি’ ইউনিট ভর্তি প্রস্তুতি নেবেন যেভাবে!

এ বছর প্রথমবারের মতো ২০টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় একসঙ্গে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক তারিখ ঘোষণা হলেও করোনা মহামারির কারণে পিছিয়ে। এটি নিশ্চিত। প্লান মাফিক পড়াশোনা করলে ২০টির যেকোন একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি সিট দখলে নেওয়া সম্ভব। আজকে ‘বি’ ইউনিটে কিভাবে ভালো করা যায় তা নিয়েই আলোচনা করা হবে— আলোচনার আগে দেখে নেয়া যাক গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন- মোট নম্বর- ১০০ বাংলা -৪০ ইংরেজি -৩৫ আইসিটি – ২৫ মোট

মেয়েদের পেটই বলে দেয় তাদের স্বভাব, চরিত্র ও ভাগ্য,জেনে নিন

জ্যোতিষবিদ্যায় সমুদ্রশাস্ত্র এমন একটি বিদ যা থেকে খোঁজ পাওয়া যায় বহু অজানা বিষয়ের। মুলত কোন মানুষের দেহের গঠন দেখে জানতে পারা যায় তার চরিত্রের নানান অজানা দিক। তেমনই মহিলাদের পেট দেখে তার প্রকৃতি ও ভবিষ্যৎ সম্পর্কে অনেক কিছু জানা যায়। তাই এই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে প্রতিবেদনটি সম্পূর্ণ মনোযোগ সহকারে পড়ুন। কলসি আকারের পেটঃ- যেসব মহিলাদের পেটের আকার কলসির মতন, তাদের জীবন লড়াই বহুল হয়। এরা বহির্মুখী হন এবং কেরিয়ারের দিক থেকে এরা সফল হয়ে থাকেন।

খুলনা বিভাগে করোনায় ৫১ জনের মৃত্যু

খুলনা: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে খুলনা বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে ৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে। শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৭৩২ জনের।বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক রাশেদা সুলতানা এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। স্বাস্থ্য পরিচালকের দফতর সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগের মধ্যে সর্বোচ্চ ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে খুলনা জেলায়। বাকিদের মধ্যে কুষ্টিয়ায় ১০ জন, যশোরে ৬ জন; ঝিনাইদহ, চুয়াডাঙ্গা, নড়াইল ও মাগুরায় ৩ জন করে এবং বাগেরহাটে ও মেহেরপুরে ১ জন করে মারা

শিশুর জন্য দুধ কিনতে লকডাউনে কর্মহীন সিএনজিচালক বাবার কান্না

কঠোর লকডাউনে বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হচ্ছে না মানুষ। সিএনজিচালক শাহ আলম বাইরে বের হয়েছেন একান্ত বাধ্য হয়ে। লকডাউনে কর্মহীন এই ব্যক্তি ২২ দিনের শিশুর জন্য দুধ কেনার টাকা জোগাড় করতে হন্যে হয়ে ঘুরছেন। শিশুসন্তানের মুখে খাবার তুলে দিতে এই বাবার কান্না সবাইকে ছুঁয়ে গেছে। শাহ আলম যশোরের শার্শা উপজেলার নিজামপুর বাজারে পরিবার নিয়ে থাকেন। লকডাউনের আগে সিএনজি চালাতেন। এতে তার যা আয় হতো তা দিয়েই পরিবারের সদস্যদের মুখে দু’বেলা আহার তুলে দিতেন। লকডাউনের

ঈদ বোনাস নিয়ে শিক্ষকদের জন্য সুখবর

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে চলমান কঠোর বিধিনিষেধ ১৪ জুলাই পর্যন্ত বাড়িয়েছে সরকার। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটিও আগামী ৩০ জুলাই পর্যন্ত বাড়িয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। মূলত শিক্ষার্থীদের সুরক্ষার জন্যই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। তবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলে বেসরকারি স্কুল ও কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীদের জুন মাসের এমপিওর চেক ছাড় হয়েছে। একইসঙ্গে ঈদুল আজহার উৎসব ভাতার চেকও ব্যাংকে পাঠানো হয়েছে। বুধবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এতথ্য জাননো হয়েছে। বেতন-ভাতা তোলার শেষ দিন ১৪ জুলাই। প্রতিষ্ঠান প্রধানদের ওয়েবসাইট (emis.gov.bd) থেকে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের

বাড়লো ব্যাংক লেনদেনের সময়

লকডাউনে আরও এক ঘণ্টা বাড়ানো হচ্ছে ব্যাংক লেনদেনের সময়। যা আজ থেকে কার্যকর হবে। নতুন নিয়মে সকাল ১০টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত চলবে লেনদেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের সূত্রমতে এই তথ্য জানা গেছে। বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) সকাল ১০টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত ব্যাংকে লেনদেন হবে। লেনদেন-পরবর্তী আনুষঙ্গিক কার্যক্রম শেষ করার জন্য ব্যাংক খোলা থাকবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এরআগে গত মঙ্গলবার (৬ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাইট সুপারভিশন ‘করো’নাভাই’রাস সংক্রমণ রোধকল্পে সরকার কর্তৃক আরোপিত বিধি-নিষেধের মধ্যে ব্যাংকিং

আর্জেন্টিনার পতাকা টাঙাতে গিয়ে যুবকের মৃ;ত্যু

গাইবান্ধায় বাসার ছাদে আর্জেন্টিনার পতাকা টাঙাতে গিয়ে এক যুবকের মৃ;ত্যু হয়েছে। বুধবার সাদুল্যাপুর উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের খোর্দ্দ রসুলপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নি;হ;ত স্বপন মণ্ডল (৩৪) একই গ্রামের নওশা মণ্ডলের ছেলে। স্থানীয়রা জানান, স্বপন মিয়া আর্জেন্টিনা ফুটবল দলের সমর্থক ছিলেন। চলমান কোপা আমেরিকা টুর্নামেন্ট উপলক্ষে তার বাসার ছাদে উঠে রডের সঙ্গে পতাকা লাগাচ্ছিলেন। এ সময় পাশে থাকা ৩৩ হাজার কেভির বৈদ্যুতিক তারে লাগে। এ কারণে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ছাদ থেকে পড়ে জ্ঞান হারান স্বপন। পরে পরিবারের

এমসিকিউয়ের মাধ্যমে হবে এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা ?

চলমান করোনা পরিস্থিতির কারণে এ বছর এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে দেখা দিয়েছে অনশ্চিয়তা। এ অবস্থায় পরীক্ষার বিকল্প নিয়ে কাজ করছে ১১ সদস্যের একটি বিশেষজ্ঞ দল। তবে পরীক্ষা নিতে শেষ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে চায় মন্ত্রণালয়। করোনা সংক্রমণ হার ১০ শতাংশের নিচে নামলেই পরীক্ষা আয়োজন করা হবে বলে জানা গেছে। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, এ বছর কোনোভাবেই অটোপাস দেয়া হবে না। প্রয়োজনে নম্বর কমিয়ে কিংবা এমসিকিউয়ের মাধ্যমে পরীক্ষা নেয়া হবে। সংক্রমণ পরিস্থিতি

লকডাউনে মধ্যবিত্তের কান্না দেখার কেউ নেই

রাজধানীর মাদারটেক এলাকার বাসিন্দা নজরুল ইসলাম। বেসরকারী একটি ট্রাভেল এজেন্সি কোম্পানি চাকুরী করেন। দুই সন্তান নিয়ে ভালোই কাটছিল সংসরা জীবন। বেতনের টাকা থেকে খরচ বাদে কিছু টাকা সঞ্চয়ও করেছিলেন। ভেবেছিলেন ঢাকার অদুরে সহকর্মীদের সাথে মাথা গোজার ঠাই করবেন। কিন্তু করোনা মহামারীতে তার স্বপ্ন দু:স্বপ্নে পরিনত হলো। করোনায় বেতন অর্ধেকে নেমে এলো। সেই থেকে শুরু হলো তার সঞ্চয় ভেঙ্গে খাওয়া। চলমান কঠোর লকডাউনে তার অফিস বন্ধ। বন্ধ হয়ে গেছে তার বেতনও। এখন দিশেহারা হয়ে পড়েছেন এই