বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে ফিল্ডিংয়ে যে দল

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে পাপুয়া নিউগিনির মুখোমুখি স্বাগতিক ওমান। এরই মধ্যে টস হয়ে গেছে। টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ওমানের অধিনায়ক জিসান মাকসুদ। ম্যাচটি শুরু হচ্ছে বিকেল ৪টায়। প্রথমবারের মতো সহযোগী দেশ হিসেবে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে ওমান ক্রিকেট দল। দীর্ঘ পাঁচ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপটি সংযুক্ত আরব আমিরাতের পাশাপাশি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ওমানেও। আর নিজেদের মাটিতে একটু নির্ভারই থাকবে দলটি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় অর্জন আয়ারল্যান্ডের

প্রথম ম্যাচ টাইগারদের সম্ভাব্য একাদশ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামছে টাইগাররা। প্রতিপক্ষ চমক দেখানোর মতো দল স্কটল্যান্ড।বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় ওমানের আল আমিরাতে ম্যাচটি শুরু হবে। গ্রুপপর্বের ‘বি’ গ্রুপে বাংলাদেশের অন্য দুই প্রতিপক্ষ ওমান ও পাপুয়া নিউগিনি। চারটি দল থেকে দুটি দল সরাসরি বিশ্বকাপের মূলপর্বে সুযোগ পাওয়া আট দলের সঙ্গে যুক্ত হবে। দেশ ছাড়ার পর থেকে পিঠের ব্যথায় কোনো ম্যাচ খেলতে পারেননি মাহমুদউল্লাহ। দুটি অফিসিয়াল প্রস্তুতি ম্যাচেই বিশ্রাম ছিলেন মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন। আইপিএলে খেলার জন্য এখনও দলের সঙ্গে

সাকিবের সামনে বিশ্ব রেকর্ড গড়ার হাতছানি

বিশ্বকাপ মিশনে রাতে মাঠে নামবে বাংলাদেশ দল। নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্কটল্যান্ডের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। এই মিশন উতরিয়ে মুল পর্বে খেলবে বাংলাদেশ। আর বিশ্ব আসর মানেই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের রেকর্ড গড়ার অনন্য সময় হয়ে দাঁড়ায়। এবারের বিশ্বকাপে একটি নয়, দুটি বিশ্ব রেকর্ডের সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছে টাইগার অলরাউন্ডার। লাসিথ মালিঙ্গাকে পেছনে ফেলে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির মর্যাদা পেতে সাকিবের দরকার আর মাত্র দুটি উইকেট। শ্রীলঙ্কার হয়ে ৮৪ ম্যাচে ১০৭টি উইকেট শিকার করে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি

বাংলাদেশের আশার আলো যে দুজন

আইপিএলে বাংলাদেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় নাম সাকিব আল হাসান। কিন্তু কয়েক বছর ধরে যে ফ্র্যাঞ্চাইজিতেই খেলেছেন, একাদশে নিয়মিত ছিলেন না তিনি। তাই বলে সাকিব আইপিএলটাকে কাজে লাগান না, সেটি বলা যাবে না। এবার যাওয়ার আগেই যেমন বলেছেন, আইপিএলে ম্যাচ খেলার সুযোগ পেলে তার একধরনের প্রস্তুতি হয়, না খেললে হয় আরেক রকম। ২০১৯ বিশ্বকাপের আগের আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে খুব বেশি ম্যাচ খেলতে পারেননি সাকিব। কিন্তু অনুশীলন সুবিধা কাজে লাগিয়ে বিশ্বকাপের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করেছেন পুরোপুরি।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সব আসরে খেলেছেন যারা

ছয়টি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজনের পর অবশেষে মাঠে গড়াচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর। ২০০৭ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম আসরের পর এবারই সবচেয়ে দীর্ঘ বিরতি দিয়ে হচ্ছে এ সংস্করণের বিশ্ব আসর। সর্বশেষ ২০১৬ সালে ভারতে হয়েছিল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এবারও খাতা-কলমে আয়োজক তারাই। তবে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে ভারত থেকে বিশ্বকাপ সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে ওমান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে। ২০২০ সালেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর হওয়ার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়ায়। তবে করোনাভাইরাসের কারণে সেটা পিছিয়ে গেছে ২০২২ সাল

ওমানের আক্রমণের পর পাপুয়ার প্রতিরোধ

টস জিতে ফিল্ডিং নিয়ে দারুণ শুরু করে স্বাগতিক ওমান। তবে এবার ব্যাট হাতে প্রতিরোধ গড়েছে পাপুয়া নিউগিনি। শূন্য রানে ২ উইকেট হারানোর পর ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে দলটি। ১৫ ওভারে তাদের স্কোর ৫ উইকেট হারিয়ে ১১২ রান। দলটির অধিনায়ক আসাদ ভালা ৪৩ বলে ৫৬ রান করে ফিরেছেন। প্রথম ও দ্বিতীয় ওভার মিলিয়ে পাঁচ বলের ব্যবধানে দুটি উইকেট হারায় পাপুয়া। শূন্য করে ফেরেন দুই ওপেনার টনি উরা ও লেগা সিয়াকা। প্রথম ওভারের পঞ্চম বলে বিলাল নেন

কে হচ্ছেন ২২ ঘজের বাজির ঘোড়া

অবশেষে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান হচ্ছে। আজ শুরু হচ্ছে বিশ্বকাপ মহাযজ্ঞ। যে আসর নিয়ে প্রায় এক মাস ব্যস্ত সময় পার করবে ক্রিকেট বিশ্ব। এরই শর্টার ভার্সনের বিশ্বকাপ জ্বরে ভুগতে শুরু করেছেন ক্রিকেট ভক্তরা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ঘিরে সব রঙ, আনন্দ, হাসি-কান্না, কথার লড়াই ছড়িয়ে পড়বে মাঠে-প্রান্তরে। এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বসার কথা ছিল ভারতে। কিন্তু করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভারতের পরিস্থিতি খারাপ হয়ে যায়। সেজন্য বিশ্বকাপ সরে আসে ওমান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে। ওমান ও সংযুক্ত আরব

কাঁদলেন পাপুয়া নিউগিনির ক্রিকেটাররা

আজ ওমানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচ খেলছে পাপুয়া নিউগিনি। ম্যাচের আগে নিয়মানুযায়ী জাতীয় সংগীত বাজানো হয়। আর পাপুয়া নিউগিনির জাতীয় সংগীত বাজানোর মুহূর্তেই এক আবেগঘন দৃশ্য প্রত্যক্ষ করল ক্রিকেট বিশ্ব। দেশটির ক্রিকেট ইতিহাসের জন্য চিরস্মরণীয় এক দিন। এমন এক দিনের অংশীদারত্বে গৌরব ১৫ ক্রিকেটারের। গর্ব, আনন্দ আর ভালোবাসা-বিশ্বকাপে প্রথমবার দেশের জাতীয় সংগীত শোনার মুহূর্তে একবিন্দুতে মিলে গেল সব। প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে দেশের জাতীয় সংগীত শুনতে পেয়ে আবেগ আটকাতে পারেননি পাপুয়া নিউগিনির কয়েকজন ক্রিকেটার ও